বিভাগবিহীন

যাপিত জীবন – ৩৫

একুশ শতকের বাংলাদেশে আমাদের যে জীবন-যাপন সেখানে অসন্তোষের কারণের উপস্থিতি কম নয়। যদিও তার প্রকাশ নেই বললেই চলে। এই ক’দিন আগে পর্যন্তও আমাদের সিনেমার সেরা নায়কের কোনো স্ক্যান্ডাল ছিলো না। আমরা ধ’রেই নিতাম তার জীবনটা বড্ড সাজানো গোছানো, আর তাই সেখানে কোনো অসন্তোষ নেই। কিন্তু যে জীবনে অসন্তোষ নেই সে জীবন কি শিল্পীর জীবন হ’তে পারে? কিমবা সন্তুষ্ট জীবন নিয়ে যার বাস তার পক্ষে কি শিল্প সৃষ্টি করা সম্ভব? আমার মনে হয় না। সেই ভাবনা আরো পাঁকা-পোক্ত হয় যখন বাংলাদেশের সিনেমা দেখতে বসি। পুনরাবৃত্তি আর জলো মেলো-ড্রামা। না আছে শিল্প, না আছে শিল্পী। স্বীকার করি আমাদের দর্শকদের তরফ থেকেও এদের থেকে তেমন কোনো চাহিদা নেই।

কিন্তু চাহিদার কথা বলছি কেন? সে কথা তো বলবে ব্যবসায়ীরা। হয়তো আমাদেরই ভুল। এখানে আজকের পরিস্থিতিতে সিনেমা আর কোনো শিল্প মাধ্যম নয়। এটা একটা বিনোদন কেন্দ্রিক ব্যবসা মাত্র। ব্যবসাতে বিনিয়োগ থাকে, মুনাফার হিসাব থাকে। শিল্প নিয়ে ব্যবসা করা গেলেও মুনাফাই তার সব নয়। কারণ শিল্প সৃষ্টির তাগিদটা শুধু মুনাফার ভাবনা থেকে এলে হয় না। সেখানে জীবনের কিংবা কোনো আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন খানিকটা হ’লেও থাকতে হয়। অবশ্য সব ধরণের জীবন কিনা তা বলা শক্ত। শুধু ভোগীর জীবন নিয়ে কি শিল্প হয়? অথবা এমন জীবন যেখানে প্রয়োজনের অতিরিক্ত কিছু নেই? শিল্প নিজেই কি জীবনের পক্ষে খানিকটা হ’লেও অতিরিক্ত কিছু নয়?

কেমন ক’রে মানুষ তার জীবনের অস্তুষ্টির প্রকাশ ঘটায়? এর কতটা স্বতস্ফূর্ত আর কতটাই বা পরিকল্পিত? প্রকাশটা দরকারী কিনা? সমাজের জন্য, জীবনের জন্য, শিল্পের জন্য তথা আনন্দের জন্য? কিন্তু জীবনে তো আনন্দ নেই ব’ললেই চলে। আছে শুধু সময় কাটানোর বাহানা। তার জন্য কত না আয়োজন! কত না প্রচেষ্টা! তাতে সময় কাটছে বটে; কিন্তু যখন ভাবতে বসি কেমন গেলো সময়টা তখন সময়ের হিসাবের বেশি কিছু মাথায় আসে না। সময়টা পার করাটাই কি জীবনের একমাত্র লক্ষ্য তবে?! আর পাশের মানুষটার থেকে লুকিয়ে রাখা জীবনের স্বপ্নহীনতাকে?

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s